দুই বিভাগে সেরা ডিসি উম্মে সালমা তানজিয়া

শনিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ৬:৩৯ পূর্বাহ্ণ | 37 বার

দুই বিভাগে সেরা ডিসি উম্মে সালমা তানজিয়া

‘বদলে দিতে চাই কিছুটা, বদলে যেতে চাই অনেকটা’- এই প্রত্যয় ব্যক্ত করে  গত বছর ঠিক এই দিনে (২০১৬ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর) ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক হিসাবে উম্মে সালমা তানজিয়া তার কর্মস্থলে যোগদান করেন। তার ঠিক এক বছরের মাথায় তিনি ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের শ্রেষ্ঠ জেলা প্রশাসক-২০১৭ হিসেবে স্বীকৃতি পেলেন।

বৃহস্পতিবার ঢাকা বিভাগের কমিশনার বজলুর করিম চৌধুরী ও ঢাকা বিভাগের বিভাগীয় উপ-পরিচালক ইন্দু ভূষন দেব স্বাক্ষরিত এক পত্রের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য তাকে এই সম্মাননা দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

তিনি যোগদানের পর থেকে এই এক বছরে ছাত্র-ছাত্রীদের আধুনিক ও নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তোলার জন্য ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবকদের সমন্বয়ে নানামুখী কর্মসূচি গ্রহণ করেন। ২৫০টির অধিক স্কুল ও কলেজে মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুম প্রতিষ্ঠা করেছেন।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া ঢাকাটাইমসকে বলেন,  ‘এসডিজি বাস্তবায়নে সরকার ঘোষিত ভিশন ২০২১ ও ভিশন ২০৪১ সফল করার লক্ষ্যে গুণগত ও মূল্যবোধের সুশিক্ষায় পরবর্তী প্রজন্মকে গড়ে তোলার কোন বিকল্প নেই। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

ফরিদপুর জেলার উন্নয়নের স্বার্থে সততা, স্বচ্ছতা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাবার প্রত্যয় ব্যক্ত করে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘ফরিদপুর জেলার ঐতিহ্যকে ধারণ করে বাংলাদেশের প্রথম সারির জেলায় রূপান্তরের চেষ্টা করব। ফরিদপুরের জেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাথে নিয়ে একটি টিম হিসেবে এ কাজ করে যাচ্ছি। ইতিমধ্যে ই-নথি কার্যক্রমে ফরিদপুর জেলা সারাদেশের মধ্যে টানা চার সপ্তাহ ১ম স্থানে রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বিনির্মাণে ফরিদপুর জেলা যেন অগ্রণী ভূমিকা রাখে সে লক্ষ্যে আমার সার্বিক প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। মহান আল্লাহ আমাদের সুযোগ দিয়েছেন জনগণের সেবা করার, সেই সুযোগকে কাজে লাগাতে হবে। ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়কে আরো অধিকতর সেবামূলক ও জনবান্ধব প্রতিষ্ঠানে পরিণত করার জন্য জেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। আধুনিক ফরিদপুরের রূপকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সার্বিক নির্দেশনা আমাদের এ চলার পথকে সুগম ও মসৃন করেছে।’

প্রসঙ্গত, উম্মে সালমা তানজিয়া রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। স্থানীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে কৃতিত্বের সাথে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সমাপ্ত করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৯৮ সালে বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারে সহকারী কমিশনার হিসেবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় যোগদান করেন। এরপর বিভিন্ন জেলায় সহকারী কমিশনার, সহকারী কমিশনার (ভূমি), জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

সিরাজগঞ্জ জেলায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৩ সালের মার্চে উপ-সচিব হিসেবে পদোন্নতি পান। পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এ টু আই)-এ কর্মরত ছিলেন। সর্বশেষ তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।-ঢাকাটাইমস/১৫সেপ্টেম্বর

zahidit

Development by: zahidit.com

Select language »