মঙ্গলবার ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছেঁড়া চাদর ।। নাসরিন জাহান

নাসরিন জাহান   |   রবিবার, ০২ জুলাই ২০২৩ | প্রিন্ট

ছেঁড়া চাদর ।। নাসরিন জাহান

নাসরিন জাহান

-প্রতিনিধি

ছেঁড়া চাদর
নাসরিন জাহান

বেজে গেলো বিজয়ের ধ্বনি ;অর্জন হলো স্বাধীনতা
কোথায়, আমার খোকা তো ফিরে এলো না
পাগলের মতো ছুটি, এখান ওখানে খোকাকে খুঁজি
বাইরে বেরিয়ে দেখি, আমার মতো অনেকেই
তাদের খোকার খোঁজে, পতাকা হাতে, এলোপাতাড়ি ছুটছে
আমি চলে যাই বধ্যভূমির ধ্বংসাবসে,
খুঁজেতে খুঁজতে পেয়েছি খোকার চাদরের একাংশ
কিছু লেখা আছে তাতে, বাকিটা ছিড়ে গেছে
আমি পাগলের মতো সারা দেশে খুঁজি
কোথায় চাদরের অবশিষ্টাংশ।


আমি দৌড়ে ছুটে যাই নদীর কাছে
তুমি কি জলে ভাসতে দেখেছ, খোকার চাদরের একাংশ
নদী বলে দেখো,আমার বুকে খুঁজে
দেখি,শত শত মাথার খুলি ভাসছে
নদীর জল তরঙ্গে তারুণ্যের উদ্দীপনা
ক্ষেপনাস্রের মতো ; সূচক বেঁধেছে গলে
আমি কিছু জল নিয়েছি আমার আঁচলে।

গেলাম চলে দূর পাহাড়ের কাছে
জান কি তুমি, কোথায় আমার ছেলের ছেঁড়া চাদরের অংশ
পাহাড় বলে খুঁজে দেখো পাদদেশে
তাকিয়ে দেখি শত শত লাশের কিয়দংশ
জিবের জল শুকিয়ে আমার আকন্ঠ
নিঃশ্বাসের বাতাসকে ওড়াতেও ক্লান্ত
নির্মম গণহত্যার অত্যাচারে আমার কথার আওয়াজ
যেনো হরদম করে পাশবিক গুলির শব্দের রেওয়াজ


আমি ছুটে যাই পিচ ডালা রাস্তায়
দেখেছো আমার ছেলের ছেঁড়া চাদরের অংশ
রাস্তা বলে,চেয়ে দেখো দূরে
দেখি দু’ধারের রাস্তায়
শত শত লাশ বন্ধী আছে বস্তায় বস্তায়
অনাহারে আমার শরীরের মৃত্যুন্জয়ী পাঁজর
ভেঙে চুড়ে চৌচির ; যেনো অথর্ব টুকরো পাথর
খুঁজে খুঁজে খোকার চাদরের একাংশ
রৌদ্রে জলসে গেছে আমার চুলের অর্ধাংশ
বিবর্ন গায়ের রং, পুড়ে হয়েছে ক্ষয়।

আরো দূরে রাস্তায় গিয়ে দেখি
একটি ট্রাকে;কোন এক নারীর আঁচলের ক্ষুদ্রাংশ
আটকে আছে ট্রাকের দরজার কবজায়
আমি সেটা নিতে যাই ;দেখি খসে পড়ে গেলো
চামড়ার কিছু অংশ
পিঁপড়ে কুঁড়ে কুঁড়ে খাচ্ছে ভিতরের অংশ
আত্মত্যাগী সেবার পরিশুদ্ধ পাহাড় বলবে কি, আমার জয়?


আমি ছুটে যাই দিগন্তের খোলা সীমানায়
তুমি খুঁজে দাও, চাদরের বাকি অংশ
দিগন্তের হাওয়া ঝপ করে উড়িয়ে আনলো নাকের শ্বাসে
বিষধর, বিকট লাশের গন্ধ ,

তারপর ও খুঁজেছি কড়া সূর্যের আলোতে
খোলা ঝর্ণাতে, পচা ডোবার স্যাঁতস্যাঁতে সরোবরে
দেখা মিলেনি সেই চাদরের ছিঁড়ে যাওয়া অংশের
বড় জঙ্গলের পাশে গিয়ে দেখি, শৃগালটা টানাটানি করছে
পঁচে গলে যাওয়া লাশের কিয়দংশ

পরিশ্রান্ত আমি , হীম শীতল পাটিতে, কারারুদ্ধ জীবনে
স্মৃতির কপাট খুলে খুঁজি কেবলই
বেজাতি,জাতি,দেব-ধর্মের সকল আস্তানায়
বাহুতে তখনো আমার বল ছিলো,
সোনার কড়িও খরচ করলাম কয়েক খানা
বিনিময়ে পেয়েছিলাম আরামের বারামখানা
সাথে ঝলমলে লাল সবুজের পতাকাখানা

শুধু ভিতরের খাটিয়ায় ছিলো, ছেঁড়া চাদর,
উসকো খুসকো বেআরাম বিছানা।
তিক্তমনে জীবের অচল স্বাদে
কিছুই খায়নি নয়মাস ধরে
পায়ে ঘা,অসার সেই দেহে খুড়িয়ে খুড়িয়ে
গেলাম ফিরে বদ্ধ ভূমির পাড়ে

বধ্যভূমি এবার কথা বলে
এখানেই বিছিয়ে রাখো মা,তোমার ছেলের ছেঁড়া চাদর
কোথাও পাবে না বাকি অংশ, ছেঁড়া চাদরের অংশটার
বিনিময়ে পেয়েছি, ঐ যে উড়ন্ত লাল সবুজের পতাকা।

শিক্ষার আলোর ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Facebook Comments Box

Posted ৬:৩৯ অপরাহ্ণ | রবিবার, ০২ জুলাই ২০২৩

শিক্ষার আলো ডট কম |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

Blooming Child – Shamsun Nahar Zeba

(554 বার পঠিত)

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
অফিস

১১৯/২, চৌগাছা, যশোর-৭৪১০

হেল্প লাইনঃ 01644-037791

E-mail: shiksharalo.news@gmail.com