শনিবার ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পিতার শৈশব ৷৷ কান্তা নবী

কান্তা নবী   |   মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০২৩ | প্রিন্ট

পিতার শৈশব ৷৷ কান্তা নবী

পিতার শৈশব ৷৷ কান্তা নবী

পিতার শৈশব
কান্তা নবী

দরবেশ শেখ আউয়ালের রক্তবীজ
মধুমতি পার হয়ে বাইগার ছুঁয়েছে ৷
সারি সারি হিজল-তাল-তমাল ছায়া সুনিবিড় ছবির মতো
দাঁড়িয়ে আছে নদীর ধারে অতন্দ্র পাহারায়;
বুনোফুলের ঝোঁপ আর কাশবন নদীর আয়নায়
নিজের ছায়া ফেলে নিজেই হেসে ওঠে জলের সাথে
যেনো শিল্পির রঙতুলিতে আঁকা গ্রাম
টুঙ্গিপাড়া নাম;


১৭ মার্চ বুধবার এখানেই সায়েরা খাতুনের কোল জুড়ে আসে
এক আলোর শিশু — শেখ মুজিবুর রহমান;
নানার ভবিষ্যদ্বাণী — এশিশু জগৎ জোড়া হবে খ্যাত ৷
বাবা-মায়ের আদরের ধন — ডাকতেন তাকে খোকা নামে
শৈশবের চঞ্চলতায় নেচে উঠতো গাছের শাখা
ধানখেত বেয়ে এ-হাওয়া ছড়িয়ে যেতো দূরে আরো দূরে;
মেঠোপথের ধুলি-কাদা মেখে বাইগারে ঝাঁপ দিলে
ঢেউয়েরা হেসে উঠতো কলতানে;
আর এভাবে তার মমতা মিশে গেছে মধুমতি হয়ে
পদ্মা-মেঘনা-যমুনা — বাংলার তেরোশত নদীর জলে
মৃত্তিকার কণায় কণায় ৷

দরিদ্র সতীর্থদের জন্য সে নেমে পড়তো
প্রতি রবিবারের মুষ্টি ভিক্ষায়;
শীতার্তকে নিজের গায়ের চাদরখানা দিয়ে
সারাটা পথে হাড়কাঁপানো শীতে কাঁপতে কাঁপতে ঘরে ফিরেছে সে;
এক বর্ষণমুখর দিনে সতীর্থকে নিজের ছাতাখানি দিয়ে দিয়েছিল
আহা! তার গায়ে কি বৃষ্টি লাগে না!
সে কি ভিজে যায় না তুমুল বৃষ্টিতে!
এতো ছোট্ট শিশু!


এ-বিশাল উদারতা শিখেছিল কোথায়!
আবহমান বাংলায় মাছরাঙার মাছশিকার
তাকে মুগ্ধ করেছিল বার বার;
পোষা শালিক আর ময়নাকে শিখিয়েছিল
শিষদেয়া, কথাবলা;
কী কথা! পাখিদের উত্তরপুরুষ মনে রেখেছে কি সেই সব!
কে জানতো!
একদিন ডিমাডাঙ্গা স্কুল পেরিয়ে এ-শিশুর নাম স্পন্দিত হবে
পৃথিবীর কোটি কোটি প্রাণে ৷

শিক্ষার আলোর ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।


Facebook Comments Box

Posted ৭:৪৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০২৩

শিক্ষার আলো ডট কম |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

Blooming Child – Shamsun Nahar Zeba

(554 বার পঠিত)

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
অফিস

১১৯/২, চৌগাছা, যশোর-৭৪১০

হেল্প লাইনঃ 01644-037791

E-mail: shiksharalo.news@gmail.com